Lord Ps Pro (এক্সেল ইন ক্রেডিট কার্ড নাম্বার হ্যাকিং)

প্রথমে কিছু প্রফেশনাল হ্যাকিং সফটওয়্যার আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। মনে রাখবেন এগুলো প্রফেশনাল হ্যাকারদের তৈরি এবং এর কিছু কিছু খুব শক্তিশালী, এগুলো দিয়ে খুব সহজেই অন্যের পিসির বারোটা বাজানো যায়। না জেনে বেশি Experiment করতে গেলে নিজের পিসির সর্বনাশ হতে সময় লাগবে না। তখন কিন্তু আমাকে দোষ দিতে পারবেন না। আমি আপনাদের সাথে এগুলো শেয়ার করছি জাস্ট আপনাদের জানার জন্য যাতে আপনারা এসব থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারেন।
“দয়া করে কারো ক্ষতির উদ্দেশ্যে ব্যবহার করবেন না”
আজ আমি আপনাদের সাথে যে সফটওয়্যারটি শেয়ার করবো তার নাম “Lord PS pro”। এটি “Pro rat” অপেক্ষা শক্তিশালী। এটার সাথে একটি ইংলিশ টিউটোরিয়াল ছিলো, আমি বাংলায় অনুবাদ করে দিয়েছি। এটি দিয়ে আপনি ভিকটিমের পিসি কন্ট্রোল করতে পারবেন না বাট তার পিসিতে থাকা ক্রেডিট কার্ড, তার সকল মেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড, তার আইপি ইত্যাদি ইত্যাদি আপনার ইমেইল এ চলে আসবে। রান হবার আগে সব এন্টিভাইরাস এটি ডিটেক্ট করতে পারনে বাট এটি একবার যে কোন মুল্যে একবার রান হলে ভিকটিমের সকল এন্টিভাইরাসের প্রোটেকশন ডিসেবল করে দেয় এবং রান হবার পর শুধু “ক্যাস্পারস্কি এন্টি-হ্যাকার” ছাড়া কোন এন্টিভাইরাসই এটি ডিটেক্ট করতে পারেনা। মজার ব্যাপার হল এটি রান হবার সাথে পিসির কোন ড্যামেজ করে না, এবং ভিকটিম বুঝতেই পারবেনা যে এটি তার পিসিতে রান অবস্থায় আছে। এটি অটোমেটিক ভাবে ৮-১০ দিন ভিকটিমের পিসি এবং নেট কানেকশন পর্যবেক্ষন করে এবং ডাটা সংগ্রহ করে আপনার ইমেইলে পাঠাবে এবং তারপর তার পিসিতে ড্যামেজ দিবে। এক্সপি সেটআপ দেওয়া ব্যাতিত এর কোন সমাধান নাই।
এটি নিয়ে কাজ করার আগে সবার প্রথমে আপনার পিসির এন্টিভাইরাসের প্রোটেকশন পজ বা টোটালি অফ করুন।
এন্টিভাইরাসের প্রোটেকশন পজ বা টোটালি অফ করার কথা বলা হয়েছে এই কারনে, কারন এন্টিভাইরাস এটিকে হারমফুল সফটওয়্যার হিসাবে ডিটেক্ট করবে এবং আপনাকে কাজ করতে দিবেনা।
তারপর ডাউনলোড করে নিন “Lord PS Pro ” সফটওয়্যারটি।

ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

ডাইনলোড কৃত ফাইলটি Extract করুন। পেয়ে যাবেন মুল সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যারটি নিয়ে একটু সাবধানে কাজ করতে হবে, কারন কিছু না জেনে কাজ করলে আপনার নিজের পিসিরই ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।
এটি দিয়েও অন্যের পিসি হ্যাক করা হয় একটি ট্রোজান সারভার সৃস্টির মাধ্যমে। এই সফটওয়্যার দিয়ে আপনি সরাসরি একটি ট্রোজান সারভার সৃস্টি করবেন এবং অন্যের পিসির ইনফর্মেশন, আপনি পেতে চাইলে আপনাকে এই ট্রোজান সারভারটিকে তার পিসিতে যেকোন মুল্যে রান করাতে হবে। প্রথমে LPS.exe ফাইলটি চালু করুন।

১. “Email option” এ আপনার ইমেইল এড্রেস সেট করে দিন, এই ইমেইলে এড্রেসে ভিকটিমের সব গুরুত্তপুর্ন তথ্য আসবে।

২. ভিকটিমের উপরের সকল ইনফর্মেশন গুলো আপনার ইমেইলে চলে আসবে। ভাগ্য ভাল থাকলে company এর সাথে চলে আসবে তার ক্রেডিট কার্ড নাম্বার (যদি পিসিতে এ সম্পর্কিত কোন ইনফর্মেশন থেকে থাকে অথবা নেটে, ভিকটিম যদি ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কিত কোন লেন দেন করে) এবং গুরুত্তপুর্ন সব ইনফর্মেশন।

৩. তার উইন্ডোজ এর উপরের অপশন গুলো ডিজেবল করতে পারবেন।

৪. তার ইন্টারনেট ব্রাউজারের উপরুক্ত ক্ষতি গুলো করা যাবে।

৫. আপনি জানেন না যে ভিকটিম কোন এন্টিভাইরাস ইউজ করে, তাই সব গুলোতে টিক দিয়ে দিন।

৬. ভিকটিমের পিসিতে ইয়াহু সহ সকল মেসেঞ্জার দিয়ে যারা যারা লগিন করবে তাদের সবার ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড, আপনার কাছে চলে আসবে।

৭. সারভারের জন্য পছন্দমত আইকন সিলেক্ট করে নিন। এক্ষেত্রে একটু কৌশলী হন। বুদ্ধি খাটান এবং নামের সাথে আইকনের সামঞ্জস্য রাখুন।

৮. এনাবল ফেক এরর অপশনটির সাহায্যে ভিকটিমের পিসিতে ফেক এরর মেসেজ দেখাতে পারবেন।

৯. ভিকটিমের পিসি এফেক্ট হবার পর প্রতিবার রিবুট হবার পর ওয়েলকাম স্ক্রীনে আপনার দেওয়া মেসেজ দেখাবে।

১০. সারভার ক্রিয়েট করতে “Create LPS” ক্লিক করুন।

১১. যেকোন নামে সেভ করুন। আবারও বলছি এক্ষেত্রে একটু কৌশলী হন। বুদ্ধি খাটান এবং নামের সাথে আইকনের সামঞ্জস্য রাখুন।

১২.সেভ করা ফাইলটিকে জিপ করে পাসওয়ার্ড প্রোটেকটেড করে ফেলুন, ডিফল্ট পাসওয়ার্ড হিসাবে ১২৩৪৫৬ সিলেক্ট করুন।মেইন সারভার ফাইলটাকে পাসওয়ার্ড প্রোটেকটেড জিপ ফাইল করা হল কারন এন্টিভাইরাস প্রোগ্রামগুলো সাধারনত পাসওয়ার্ড প্রোটেকটেড আর্কাইভ সমুহ স্ক্যান করে না। তারপর এই জিপ ফাইলটিকে যে কোন ফাইল শেয়ারিং সাইটে যেমনঃ মিডিয়া ফায়ার,মেগা আপলোড, যিড্ডু, মিরর ক্রিয়েটর ইত্যাদি সাইটে আপলোড করে দিন। এবং লিঙ্কটি,এবং কিছু চটকদার কিছু কথা লিখে (তাকে কনভেন্স করা, সম্পুর্ন আপনার উপর নির্ভর করবে)  ইমেইল করে ভিকটিমের কাছে পাঠিয়ে দিন সাথে extract করার পাসওয়ার্ডটিও বলে দিন। যদি ভিকটিম ফাইলটি রান করে তবে ট্রোজান সারভারটি আপনার সেটকৃত কমান্ড অনুযায়ী তার পিসিতে এক্টিভ হবে। এবং তার ইন্টারনেট চালু থাকলে পিসির সব গুরুত্তপুর্ন তথ্য  আপনার হাতে এনে দেবে। ভিকটিম আক্রান্ত হলে আপনার কাছে ইমেইল নোটিফিকেশন আসবে।

বিঃদ্রঃ সময়ের অভাবে স্কীন সর্টগুলো দিতে পারলাম না বলে দুঃখিত।

মোটকথা সবগুলো চেক বক্সে ক্লিক করে ফাইলটি ক্রিয়েট করে ভিক্টিমের কাছে পাঠান ১০০% কাজ হবে।

ধন্যবাদ আজ এ পর্যন্তই……..

এই বিভাগের আরো পোষ্ট সমূহ

Share

আমাদের পোষ্টগুলো ফলো এবং শেয়ার করতে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

অনুসন্ধান ডটকম © 2016